বড় করদাতারাই যখন ভরসা বিনিয়োগ করে যেভাবে কর কমাবেনরিটার্ন দেওয়ার কৌশলএক পাতার আয়কর রিটার্ন ফর্ম চালু করেছে এনবিআরহোল্ডিং ট্যাক্স ও ট্রেড লাইসেন্স নবায়নে ছাড়ের সময় বাড়ল
No icon

প্রস্তাবিত বাজেটকে ব্যবসাবান্ধব বলছে ডিএসই

বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশা অনুযায়ী ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে দেশের শেয়ারবাজারের জন্য বেশ কিছু ইতিবাচক উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশার সাথে প্রাপ্তির সমন্বয় হয়েছে। এজন্য অর্থমন্ত্রীকে অভিনন্দনও জানিয়েছে ডিএসই। ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট ব্যবসাবান্ধব ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের অনুকূলে হয়েছে বলে মনে করছে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। এ জন্য অর্থমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। ডিএসইর পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশা অনুযায়ী ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে দেশের শেয়ারবাজারের জন্য বেশ কিছু ইতিবাচক উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশার সাথে প্রাপ্তির সমন্বয় হয়েছে। এজন্য অর্থমন্ত্রীকে অভিনন্দনও জানিয়েছে ডিএসই।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, সরকার প্রস্তাবিত বাজেটে শেয়ারবাজারের উন্নয়ন, বন্ড মার্কেটকে শক্তিশালীকরণ, শিল্পায়নের জন্য ব্যাংক নির্ভরতা কমানো এবং অপ্রর্দশিত টাকা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের সুযোগ প্রদান করেছে।

পাশাপাশি সরকারের ইতিবাচক মনোভাবের ফলে ক্রমবিকাশমান শেয়ারবাজার আরও গতিশীল হবে বলে মনে করে ডিএসই।

এছাড়াও, অর্থমন্ত্রী তার বাজেট বক্তৃতায় স্বাস্থ্য, কৃষি, খাদ্য উৎপাদন ও ব্যবস্থাপনা এবং কর্মসংস্থানসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নির্মাণের উপর বিশেষ গুরুত্বারোপ করেছেন। প্রবৃদ্ধির চালিকাশক্তি হচ্ছে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে শ্রমশক্তির অধিকতর অংশগ্রহণ। দীর্ঘমেয়াদি মূলধন সংগ্রহের অন্যতম মাধ্যম হলো দেশের পুঁজিবাজার।

তাই অর্থনৈতিক উত্তরণ ও ভবিষ্যত পথপরিক্রমার অংশীদার হিসেবে প্রস্তাবিত বাজেটে দেশের পুঁজিবাজার সরকারের কাংক্ষিত লক্ষ্যে এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে ডিএসই দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করে।