করমুক্ত আয়ের সীমা বাড়ানো উচিত ছিলকর-ভ্যাটের চাপ আরও বাড়বেবাজেটে নিত্যপ্রয়োজনীয় ৩০ পণ্যে কমছে করভোগ্য পণ্যে শুল্ক কমানোর পরামর্শনতুন করের বোঝা না চাপানোর অনুরোধ ডিএসই’র
No icon

কোমল পানীয়র ন্যূনতম কর কমিয়ে ৩ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে

কোমল পানীয় বা কার্বনেটেড বেভারেজের ন্যূনতম কর ৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৩ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে। বুধবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) এক প্রজ্ঞাপনে কর হার পুনর্নির্ধারণ করা হয়।গত অর্থবছর পর্যন্ত কার্বনেটেড বেভারেজের ন্যূনতম কর হার ছিল দশমিক ৬০ শতাংশ। তবে চলতি অর্থবছরের বাজেটে কোমল পানীয় কোম্পানির পণ্য বিক্রি থেকে প্রাপ্ত আয়ের ওপর কর (টার্নওভার ট্যাক্স) ৫ শতাংশ করা হয়।সম্প্রতি এ কর সর্বোচ্চ ১ শতাংশ করার দাবি জানায় উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান প্রাণ, ট্রান্সকম বেভারেজেস, আব্দুল মোনেম ও কোকা-কোলা বাংলাদেশ। এনবিআরে যৌথ এক চিঠিতে তারা এ দাবি জানায়।প্রতিষ্ঠানগুলো যৌথ বিবৃতিতে জানায়, নতুন আয়কর আইন, ২০২৩ অনুযায়ী কার্বনেটেড বেভারেজের গ্রস প্রাপ্তির ওপর ৫ শতাংশ ন্যূনতম কর আরোপ করা হয়েছে। তবে আয়কর অধ্যাদেশ, ১৯৮৪ অনুযায়ী কার্বনেটেড বেভারেজের কাঁচামালের উৎসে আয়কর কেটে নেওয়া হতো। এই করকে অগ্রিম আয়কর হিসেবে বলা হতো।আয়কর অধ্যাদেশ অনুযায়ী, গ্রস প্রাপ্তির ওপর করের হার ছিল দশমিক ৬ শতাংশ। তবে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের দাবি, আগের কর হারের সঙ্গে তুলনা করলে নতুন কর হার অনুযায়ী প্রায় ৮৩০ শতাংশ কর বেড়েছে।