আয়কর ফাইলে ত্রুটি থাকলে বিপদ থাকবে ৬ বছর পর্যন্তঅল্প সময়ে আয়কর রিটার্ন জমা দিতে হলে জেনে নিনকরসেবায় মেলার আমেজচাকরিজীবীরাই বেশি আয়কর রিটার্ন দেনঅর্ধেক কোম্পানি আয়কর রিটার্ন দেয় না
No icon

রাজস্ব আদায়ে অভিযান শুরু ঢাকা উত্তরে

করের বাইরে থাকা বাসাবাড়ি ও দোকানকে রাজস্বভুক্ত করতে অভিযান শুরু করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন। গতকাল মঙ্গলবার অভিযান শুরুর দিনে ২ নম্বর অঞ্চলের আওতাধীন মোহাম্মদপুরের চানমিয়া আবাসিক এলাকায় ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। প্রাথমিকভাবে ২ ও ৫ নম্বর অঞ্চলের মোট ১৭টি ওয়ার্ডের রাজস্বের বাইরে থাকা বাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানকে করের মধ্যে আনা হবে। এই দুই অঞ্চলের পর বাকি আটটি অঞ্চলে পর্যায়ক্রমে অভিযান চালানো হবে বলে জানা গেছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, অভিযানের সময় বিভিন্ন বাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে করের রসিদ ও ট্রেড লাইসেন্সের প্রমাণ চাইছেন কর্মকর্তারা। যেসব প্রতিষ্ঠান কাগজপত্র দেখাতে পারেনি তাদের নাম লিপিবদ্ধ করা হচ্ছে।

অভিযানে উপস্থিত মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, এই অর্থবছরে ডিএনসিসি ৪০০ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্য স্থির করেছে। গত অর্থবছর কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারেনি ডিএনসিসি। যাদের কর দেওয়ার সক্ষমতা আছে, এমন অনেকেই তা দিচ্ছে না। অনেক প্রতিষ্ঠানের ট্রেড লাইসেন্স নেই। সবাই কর দিলে ৪০০ কোটি টাকা আসবেই।

সব নাগরিকের করজালের আওতায় আনা গেলে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১০০ কোটি টাকা বেশি রাজস্ব আদায় হবে বলে মনে করেন তিনি।

এ জন্য প্রয়োজনীয় সব কিছু সিটি করপোরেশন করবে জানিয়ে মেয়র বলেন, শহরের মধ্যে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান চালাতে যে পৌরকর দিতে হয়, ট্রেড লাইসেন্স লাগে, সেটা তাঁরা ভুলে গেছেন। তবে এবার কোনো ধরনের তদবির শুনব না।