এনআইডি যাচাইসহ বিডার ওএসএসে যুক্ত হচ্ছে ৩ সেবাস্বয়ংক্রিয় চালানের পরীক্ষামূলক যাত্রা শুরু এ মাসেইভেস্তে যেতে চলেছে অনলাইনে রিটার্ন জমাএকক ব্যক্তি কোম্পানি খোলার সুযোগ রেখে আইন অনুমোদনরাজস্ব ঘাটতি ৮২ হাজার কোটি টাকা: এনবিআরের চূড়ান্ত হিসাব
No icon

‘রাজস্ব আদায় বাড়াতে অটোমেশনের বিকল্প নেই্’

রাজস্ব আদায় বাড়াতে অটোমেশনের বিকল্প নেই্ বলে মনে করেন অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম। বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) দুপুরে ই-পেমেন্ট সিস্টেমের উদ্বোধনকালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে তিনি এসব কথা বলেন। প্রতিষ্ঠানটির সম্মেলন কক্ষে ওই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের ঘোষণা বাস্তবায়নের অংশ হিসাবে ই-পেমেন্ট মডিউল চালু হয়েছে। ভ্যাটসংক্রাস্ত সব কর ই-মেন্টের মাধ্যমে দেওয়া যাবে। আপাতত তিনটি ব্যাংকের মাধ্যমে পেমেন্ট দেওয়া যাবে। তবে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে বাংলাদেশের সব ব্যাংক থেকে ই-পেমেন্ট করা যাবে।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, আইবাসের ১৫টি মডিউলের মধ্যে রেজিস্ট্রেশন, রিটার্ন ও ট্যাক্স পেয়ার অ্যাকাউন্ট মডিউল তিনটি বাস্তবায়ন করা হয়েছে। বন্ড অটোমেশন ও সিঙ্গেল ইউনডো সিস্টেমের অটোমেশনের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। রেজিস্ট্রেশন মডিউল অনলাইন ভিত্তিক করায় ইতিমধ্যে এক লাখ ৬৬ হাজার ৭২০ জন করদাতা অনলাইনে বিআইএন গ্রহণ করেছেন। ২০১৯ সালের অক্টোবর থেকে ৪২ হাজারের বেশি করদাতা অনলাইনে ভ্যাট রিটার্ন দাখিল করেছেন। আমরা অনলাইনে রিটার্ন দাখিল বাধ্যতামূলক করার চেষ্টা করবো। আমি আশা করছি, করদাতার এই পদ্ধতি গ্রহণ করবেন।

তিনি জানান, এখন তিনটি ব্যাংক এইচএসবিসি, প্রাইম ও মিডল্যান্ড ব্যাংকের মাধ্যমে ই-পেমেন্ট কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে সব ব্যাংকে এই প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত করা সম্ভব হবে।

অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালভাবে বক্তব্য রাখেন কন্ট্রোলার অ‌্যান্ড অডিটর জেনারেল বাংলাদেশ মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী। আরও বক্তব্য রাখেন এনবিআরের সদস্য মাসুদ সাদিক, ভ্যাট অনলাইন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক কাজী মোস্তাফিজুর রহমানসহ অর্থ মন্ত্রণালয়, পেট্রোবাংলা ও বাংলাদেশ ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।