সামাজিক নিরাপত্তায় বরাদ্দ থাকছে ১ লাখ কোটি টাকাআগামী বাজেট দরিদ্রদের জন্য: অর্থমন্ত্রীসেবা পেতে রিটার্ন জমা স্লিপ বাধ্যতামূলক হচ্ছেএনবিআর লক্ষ্যমাত্রা থেকে পিছিয়েব্যবসায়ীদের কাছে ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাব চাইল এনবিআর
No icon

সৌদি-কাতার সীমান্ত দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু

কাতারের ওপর সৌদি জোটের অবরোধ প্রত্যাহারের দেড় মাস পর সৌদি ও কাতারের সীমান্ত দিয়ে আবারও চালু হলো আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম। এর মাধ্যমে ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসার হওয়ায় সম্ভাবনার নতুন দ্বার খুলবে বলে আশাবাদী প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা।

অবশেষে সৌদি-কাতার সীমান্ত দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু
গত ৪ জানুয়ারি দীর্ঘ সাড়ে তিন বছর পর কাতারের ওপর সৌদি জোটের অবরোধের অবসান ঘটে। অবরোধ প্রত্যাহারের পর এতদিন শুধু গাড়ি চলাচলের জন্য খোলা ছিল সীমান্ত। তবে এবার বাণিজ্যিকভাবে আমদানি-রপ্তানির জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে সীমান্তটি।

এ সিদ্ধান্তের ফলে দুই দেশের মধ্যে আবারও শুরু হয়েছে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম। এতে ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়বে কয়েক গুণ। ফলে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টিসহ নানা ক্ষেত্রে আশার আলো দেখছেন প্রবাসী ব্যবসায়ীরা।

প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ী কেপ্টেন আবু তাহের বলেন, আমরা অনেক খুশি। সমস্যা নিরসন হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে ব্যবসা ও বাণিজ্য শুরু হয়েছে। এতে আমরা আর্থিকভাবে লাভবান হতে পারব। তিনি আরও বলেন, অবরোধের আগে আমি চায়না থেকে মালামাল নিয়ে এসে ব্যবসার পরিকল্পনা করেছিলাম। সৌদি জোটের অবরোধের কারণে তা আর করা হয়নি, অবরোধ প্রত্যাহারের ফলে আমরা আবার হয়তো নতুন করে শুরু করতে পারব।

সন্ত্রাসবাদে সমর্থন ও অর্থায়নের অজুহাতে ২০১৭ সালে কাতারের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপ করেছিল সৌদি জোট। নিষেধাজ্ঞার কারণে কিছুটা স্থবির হয়ে পড়েছিল কাতারের অর্থনীতি। যার নেতিবাচক প্রভাব পড়েছিল প্রবাসী বাংলাদেশিদের ওপরও।

কাতার প্রবাসী ব্যবসায়ী হাসান মাবুদ বলেন, সৌদি জোটের অবরোধের কারণে আমার দীর্ঘদিনের হজ কাফেলার ব্যবসা বন্ধ হয়ে গেছে। সীমান্ত যেহেতু খুলে দিয়েছে, আমরা এ ব্যবসা আবারও শুরু করব।