জাতীয় আয়কর দিবস আজরিটার্ন দাখিলের সময় বাড়াতে এনবিআরকেআগামীকাল শেষ দিন, রিটার্ন জমা দিতে কর অঞ্চলে ভিড়করদাতা ও গ্রহীতার সম্পর্ক বন্ধুত্বপূর্ণ হতে হবেঢাকা উত্তরে করের বোঝা চেপেছে মানুষের ওপর
No icon

রাজস্ব হ্রাস ৫৫১৯ কোটি টাকা

বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংকটের কারণে বড় ধরনের আঘাত আসছে আমদানি ও রপ্তানি খাতে। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও বিরাজ করছে ঊর্ধ্বমুখী মূল্যস্ফীতি। পরিস্থিতি সামলে নিতে ভোজ্যতেলসহ কয়েকটি পণ্যের আমদানি শুল্ক হ্রাস করা হয়।এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে স্থানীয় ব্যবসা-বাণিজ্যের ওপর। বৈশ্বিক আর্থিক সংকটে পর্যটকদের আনাগোনাও কমছে। মূল্যস্ফীতির কারণে কমেছে সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতা। এ ধরনের নানাবিধ সংকটের মুখে ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে রাজস্ব আয় কমেছে ৫৫১৯ কোটি টাকা। তবে এ সময় প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১২ দশমিক ৬৩ শতাংশ। অর্থবছরের জুলাই-সেপ্টেম্বরে রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৭১ হাজার ২৫৬ কোটি টাকা ।এর বিপরীতে আদায় হয়েছে ৬৫ হাজার ৭৩৭ কোটি টাকা। গত অর্থবছরের (২০২১-২২) একই সময়ে রাষ্ট্রীয় কোষাগারে রাজস্ব আসে ৫৮ হাজার ৩৬৮ কোটি টাকা।

স্থানীয় পর্যায়ে ভ্যাট আদায়ে ঘাটতি :করোনা-পরবর্তী অর্থনীতি কিছুটা ঘুরে দাঁড়ানোর পর ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের কারণে বড় ধরনের সংকটের মধ্যে পড়েছে দেশের অর্থনীতি। এছাড়া বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে বাংলাদেশেও মূল্যস্ফীতির হার ঊর্ধ্বমুখী। যে কারণে সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতাও কমছে। এর প্রভাব পড়েছে অভ্যন্তরীণ ব্যবসা-বাণিজ্যের ওপর। যে কারণে অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে স্থানীয় পর্যায়ে ভ্যাট খাতে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা প্রায় ২৪ হাজার ৬৪২ কোটি টাকার বিপরীতে আদায় হয়েছে ২৩ হাজার ২১৬ কোটি টাকা। ওই হিসাবে আদায় কমছে ১ হাজার ৪২৬ কোটি টাকা। তবে আদায় কমলেও প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১০ দশমিক ০৬ শতাংশ।

আয়কর ও ভ্রমণ করে বিরূপ প্রভাব : চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে এ খাতে প্রবৃদ্ধি ১১ দশমিক ৫৫ শতাংশ হলেও লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় আয় কমেছে ১৪০৫ কোটি টাকা। ডলারের মূল্য অস্বাভাবিক বৃদ্ধিসহ বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংকটে পর্যটন খাতে বিরূপ প্রভাব পড়েছে। এছাড়া সরকারি চাকরিজীবীদের সব ধরনের বিদেশ ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া আছে। ফলে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রত্যাশা করা হয়েছিল আয়কর ও ভ্রমণ কর থেকে ২১ হাজার ৪৯৩ কোটি টাকা আদায় করা যাবে। কিন্তু আদায় হয়েছে ২০ হাজার ৮৭ কোটি টাকা।