করমুক্ত আয়ের সীমা বাড়ানো উচিত ছিলকর-ভ্যাটের চাপ আরও বাড়বেবাজেটে নিত্যপ্রয়োজনীয় ৩০ পণ্যে কমছে করভোগ্য পণ্যে শুল্ক কমানোর পরামর্শনতুন করের বোঝা না চাপানোর অনুরোধ ডিএসই’র
No icon

ইন্দোনেশিয়া চালু করল গোল্ডেন ভিসা

বিনিয়োগে আকৃষ্ট করতে ইন্দোনেশিয়াও গোল্ডেন ভিসা চালু করেছে। বিদেশি ব্যক্তি ও করপোরেট বিনিয়োগকারীদের জন্য এই বিশেষ ভিসা কর্মসূচি দেশটির জাতীয় অর্থনীতি চাঙা করতে ভূমিকা রাখবে বলে সরকারের আইন ও মানবাধিকার মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে। খবরে জানানো হয়েছে, রোববারে প্রকাশ করা ওই বিবৃতিতে অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক সিলমি করিম বলেন, ‘এই গোল্ডেন ভিসার আওতায় বিনিয়োগকারীরা ৫ থেকে ১০ বছরের জন্য ইন্দোনেশিয়ায় বাস করার অনুমতি পাবেন।’ পাঁচ বছরের ভিসার জন্য ব্যক্তি বিনিয়োগকারীদের এমন একটি কোম্পানি খুলতে হবে, যার আর্থিক মূল্য হবে কমপক্ষে ২৫ লাখ মার্কিন ডলার। অন্যদিকে ১০ বছরের ভিসা পাওয়ার জন্য একজন ব্যক্তিকে ৫০ লাখ ডলার বিনিয়োগ করতে হবে। 

পৃথিবীর অনেক দেশই বিনিয়োগ আকৃষ্ট করতে এ ধরনের গোল্ডেন ভিসা কর্মসূচি চালু করেছে। এসব দেশের মধ্যে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, আয়ারল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড ও স্পেন। এর মাধ্যমে এসব দেশ পুঁজি ও উদ্যোক্তাদের আকৃষ্ট করে এবং বিনিয়োগকারীদের সে দেশে বসবাস করার অনুমতি দেয়। ইন্দোনেশিয়ায় পাঁচ বছরের গোল্ডেন ভিসা পেতে করপোরেট বিনিয়োগকারীদের ২ কোটি ৫০ লাখ ডলার বিনিয়োগ করতে হবে। এই পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করলে কোম্পানির পরিচালক ও কমিশনাররা দেশটিতে পাঁচ বছর বসবাস করার অনুমতি পাবেন। আর ১০ বছরের ভিসা পেতে বিনিয়োগ করতে হবে এর দ্বিগুণ পরিমাণ অর্থ, অর্থাৎ ৫ কোটি ডলার।

তবে ইন্দোনেশিয়ায় কোম্পানি খুলতে না চাইলেও বিদেশি ব্যক্তি বিনিয়োগকারীদের জন্য ভিন্ন ব্যবস্থা রয়েছে। তাঁরা সরকারের বন্ডে অর্থ বিনিয়োগ করতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন ধরনের ভিসার জন্য ভিন্ন ভিন্ন পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করতে হবে। এর পরিমাণ হলো ৩ লাখ ৫০ হাজার ডলার থেকে শুরু করে ৭ লাখ ডলার পর্যন্ত। সিলমি করিম বলেন, ‘গোল্ডেন ভিসাধারীরা ইন্দোনেশিয়ায় এসে পৌঁছানোর পর তাঁদের বসবাসের জন্য আর আলাদা করে আবেদন করতে হবে না।’ 

বার্তা সংস্থা রয়টার্স