আবারও ভোজ্যতেলের ভ্যাট ১৫ শতাংশপ্রত্যক্ষ কর বাড়ানোর সুপারিশ মেট্রো চেম্বারেরউচ্চ মূল্যস্ফীতির কারণে বৈশ্বিক মন্দার আশঙ্কা উৎসে কর কর্তন: ব্যাখ্যা চেয়ে এনবিআরকে তিন ব্যাংকের চিঠিমিয়ানমারের অর্থনীতি পতনের দ্বারপ্রান্তে
No icon

আগস্টে রাজস্ব আদায় বেড়েছে ১৯ শতাংশ

চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের দ্বিতীয় মাস আগস্টে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ২২ হাজার ৪৭২ কোটি ৪০ লাখ টাকার রাজস্ব সংগ্রহ করেছে। গত অর্থবছরের একই মাসের তুলনায় এটি ১৯ দশমিক ১২ শতাংশ বেশি। তবে মোট সংগ্রহে ভালো প্রবৃদ্ধি থাকলেও আমদানি পর্যায় ও আয়কর থেকে রাজস্ব আয়ে লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়নি। এনবিআরের রাজস্ব সংগ্রহবিষয়ক সাময়িক হিসাব থেকে এ তথ্য জানা গেছে।এনবিআর জানায়, চলতি অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে রাজস্ব সংগ্রহ হয়েছে ১৭ হাজার ৭৬০ কোটি ৬৮ লাখ টাকা, যা গত অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ১৫ দশমিক ৭৪ শতাংশ বেশি।আগস্ট মাসে ২৩ হাজার কোটি টাকার রাজস্ব সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা ছিল। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৮ হাজার ৪৬৮ কোটি টাকা রাজস্ব আশা করা হয়েছিল আমদানি পর্যায় থেকে। কিন্তু এ খাতে সংগ্রহ হয়েছে ৮ হাজার ৯৭ কোটি টাকা। বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয়ের লক্ষ্যে বিভিন্ন পণ্যের আমদানিতে এলসি মার্জিন বৃদ্ধি ও ডলারের দাম বেড়ে যাওয়ার ফলে এ খাত থেকে রাজস্ব সংগ্রহ লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় কম হয়েছে।

এছাড়া স্থানীয় পর্যায়ের ভ্যাট থেকে ৮ হাজার ২১৪ কোটি টাকা লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে আদায় হয়েছে ৮ হাজার ৭৩৪ কোটি টাকা। পণ্যমূল্য বাড়ার ফলে ভ্যাট সংগ্রহ বেড়েছে। আয়কর ও ভ্রমণকর থেকে ৬ হাজার ৩২২ কোটি টাকা রাজস্ব সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে সংগ্রহ হয়েছে ৫ হাজার ৬৪২ কোটি টাকা। মোট সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে লক্ষ্যমাত্রার ৯৭ দশমিক ৬৯ শতাংশ। লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় ৫৩২ কোটি টাকা কম সংগ্রহ হয়েছে।গত বছরের আগস্ট মাসে এনবিআর মোট ১৮ হাজার ৬৬৫ কোটি টাকা রাজস্ব সংগ্রহ করেছিল, যা ছিল ওই সময়ের লক্ষ্যমাত্রার ৯৪ দশমিক ২৫ শতাংশ। গত বছর আগস্টে রাজস্ব সংগ্রহে প্রবৃদ্ধি হয় ২৪ দশমিক ৫৩ শতাংশ।এনবিআরের সংশ্নিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, পণ্যের দাম বাড়ার ফলে স্থানীয় পর্যায় থেকে ভ্যাট সংগ্রহ বেড়েছে। তবে সামগ্রিকভাবে আমদানি কমে যাওয়ায় এ খাত থেকে রাজস্ব সংগ্রহ কমেছে।